হাদীস
সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৫৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৫৪ - হযরত ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম মাহাকালাহ (২) মােনাবাযাহ (৩) মােলামাসাহ (৪) মােথাদারাহ (৫) মােযাবানাহ ধরনের বেচা-কেনা করা নিষিদ্ধ করেছেন। মুসলমানের কাউকে ধােকায় ফেলাই তার উদ্দেশ্য। এ প্রসঙ্গে আয়াত >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৯৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৯৫ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, লেনে আকরাম হে এবং উসামা ইবনে যায়েদ বেলাল এবং ওসমান ইবনে তালহা (র) বায়তুল্লাহর মধ্যে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দিলেন। যখন খুলে দিলেন তখন প্রথম প্রবেশ করলাম। এবং বেলালের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৮৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৮৬ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ কে জিজ্ঞেস করা হলাে সর্বোত্তম আমল কোনটি? তিনি বললেন, আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের প্রতি ঈমান আনা। আবার প্রশ্ন করা হলাে, তারপর কোনটি? তিনি বললেন, আল্লাহর পথে জিহাদ করা। আবা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৫১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৫১ - হযরত আয়েশা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি এ আমাকে কাবা ঘরের বাইরের দেয়াল হাতীমে কাবা সম্পর্কে জিজ্ঞেস করেছিল, কাবা ঘরের অংশ নয় কি? উত্তরে হযরত নবী করীম বললেন, হ্যা! উহা ঘরের অংশ। আমি জিজ্ঞেস করলাম তাহলে কুরাইশরা সেই অংশ >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৮ - হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন। রাসূলুল্লাহ প্রত্যেক ছােট বড় স্বাধীন ও কৃতদাসের উপর সদকায়ে ফিতরা এক সা যৰ অথবা | এক সা খেজুর নির্ধারণ করে দিয়েছেন। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) ছোট বড় সকলের ফিতরা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৭ - আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সদকায়ে ফিতরা হিসেবে স্বাধীন ব্যক্তি, মুসলিম দাস, মুসিলম নরনারী এবং বালক-বালিকা ও বৃদ্ধের উপর এক সা খেজুর অথবা এক সা যব দেয়ার জন্য আদেশ করেছেন। রাসূলুল্লাহ আরাে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৬ - আবু সাঈদ খুদরী (রা) হতে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ এর যমানায় আমরা ঈদুল ফেতরের দিন সদাকায়ে ফেতরা আদায় করতাম। সদকায়ে ফেতরা বাবদ মাথাপিছু এক সা পরিমান দিতাম। তখন আমাদের খাদ্য ছিল যব, পানি, কিশমিশ ও খুরমা খেজুর । >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০৫ - আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ লােকদেরকে ঈদের নামাযে যাবার আগেই সদকায়ে ফিতরা আদায় করার নির্দেশ দিয়েছেন। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০০ - হযরত আনাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার রাসূলুল্লাহ এর সামনে কিছু গােশত হাযির করা হলাে, যা বারীরা (রা)-কে সদকাস্বরূপ দান করা হয়েছিল। রাসূলুল্লাহ বললেন, এ গােশত যখন বারীরাকে দেয়া হয়েছিল তখন তা সদকা ছিল কিন্তু উক্ত গাে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৮১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৮১ - হযরত আয়েশা (রা) হতে বর্ণিত-তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহি এর করেছেন যদি কোন মহিলা স্বামীর ধন সম্পদের ক্ষতি সাধন না করে স্বামীর ঘর থে কিছু দান সদকা করে অথবা কাউকে কোন কিছু খেতে দেয়, তবে স্বামী তার মালিক স্বত্তে সওয়াবের অধিকারী >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৬৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৬৪ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত-তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ এরশাদ করেছেন, ততক্ষণ পর্যন্ত কেয়ামত সংঘটিত হবে না যতক্ষণ পর্যন্ত তােমাদের মাঝে ধন সম্পদ পরিপূর্ণ হয়ে উপচে না পড়বে। এমন কি ধন সম্পদের মালিক তখন চিন্তায় পড়ে যাবে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৯৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৯৬ - হযরত ইবনে আব্বাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, এক জন লােক মৃত্যুবরণ করল। তার অসুখের সময় রাসূল খোজ খবর নিতেন। তার মৃত্যু হলে রাতেই লােকেরা তাকে দাফন করেন। সকাল হলে তারা রাসূল কে অবহিত করেন। রাসূল বললেন, আমাকে সংবাদ দিতে তােমা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৪৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৪৪ - হযরত আবু বকর সিদ্দীক (রা) একদিন রাসূলুল্লাহ এর কাছে আরজ করলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমাকে একটি দোয়া শিক্ষা দিন যা আমি নামাযে পাঠ করব। তখন তিনি বললেন তুমি পড়অর্থঃ হে আল্লাহ! আমি আমার আত্মার উপর রড়ই অত্যাচার করেছি এবং তুমি >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৪৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৪৩ - হযরত কাব ইবনে উজরা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার আমরা রাসূল পাক -এর কাছে জিজ্ঞেস করলাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আপনার প্রতি সালাম তাে আল্লাহপাক স্বয়ং আমাদেরকে শিক্ষা দিয়েছেন। আপনার আহলে বাইত সহ আমরা আপনার প্রতি দুরূদ বা সাল >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৩৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৩৭ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, হযরত নবী করীম যখন নামাযের সেজদা আদায় করতেন তখন তিনি তাঁর উভয় হাতকে এমনভাবে প্রকাশ করে দিতেন যাতে তার বগলের সাদা অংশ পর্যন্ত দেখা যেত। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪২৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪২৮ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) বলেন, রাসূলুল্লাহ সবচেয়ে বেশী দানশীল ছিলেন, আর রমজান মাসে যখন ব্রিাঈল (আ) তার সাথে সাক্ষাৎ করতেন তখন তার দানশীলতার সীমা থাকত না। জিব্রাঈল (আ) রমজানের প্রত্যেক রাত্রে রাসূল এর সাথে সাক্ষাৎ কর >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪১৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪১৮ - হযরত নােমান ইবনে বশীর (রা) হতে বর্ণিত। হযরত নবী করীম বলেছেন, সাবধান হুঁশিয়ার তােমরা নামাযের মধ্যে কাতার সােজা করে দাঁড়াবে অন্যথায় আল্লাহ তায়ালা তােমাদের পরস্পরের মধ্যে বিরােধ সৃষ্টি করে দিবেন। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪০৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪০৫ - হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রা) হতে বর্ণিত তিনি বলেন, একদিন হয়। করে আকাশে মেঘ দেখা দিল। এমন কি প্রচুর বৃষ্টিও বর্ষিত হল। বৃষ্টিতে মসজিদে নববীর ছাদ থেকে পানি পড়ে মসজিদ ঘর ভিজে গেল। ঐ সময় মসজিদের ছাদে ছিল। খেজুর পাতা দিয়ে ঢাকা। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৫০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৫০ - আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলে পাক ইরশাদ করেছেন যে, হযরত বেলালের আযান তােমাদের কারাে সেহেরী খানার জন্য। নিষেধ করবে না। যেহেতু সে রাত্র থাকতেই ফজরের আযান দিয়ে থাকে। উদ্দেশ্যে হল, যাতে তােমাদের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩০০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩০০ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ বলেছেন, যদি কোন ব্যক্তি যে কোন ওয়াক্তে নামাযের মাত্র এক রাকাত ও জামাতের সাথে। পায় সে জামাতে নামায পড়ার সওয়াব পাবে। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৯৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৯৫ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) বলেন, কোন এক রাতে রাসূল পাক বিশেষ কারণে মসজিদে আসতে দেরী করলেন যার ফলে এশার নামাযও দেরী করে পড়া হলাে। এমন অবস্থায় আমি মসজিদে ঘুমিয়ে পড়লাম পরে জাগ্রত হলাম। পুনরায় আবার আমি ঘুমিয়ে পড়লাম তার >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৪৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৪৪ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার নবী করীমঙ্গল উপস্থিত মুসল্লীদেরকে উদ্দেশ্য করে বললেন। তােমরা কি নামায অবস্থায়। আমার সম্মুখ ভাগ দেখতে পাচ্ছ? সুতরাং আল্লাহর শপথ করে বলছি। তােমাদের সিজদা, তােমাদের রুকু >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৩৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৩৩ - উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, মহান রব্বল আলামীন যখন নামাযগুলাে ফরজ করেছেন, তখন তা দু দু রাকাত করে ফরয করেছেন। একামত অবস্থায় হউক অথবা সফর অবস্থায় হউক। অতঃপর সফর অবস্থায় দুরাকাত নামায ঠিক রাখা হয়ে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২২১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২২১ - হযরত জাবের (রা) বর্ণনা করেন নবী করীম এবার ইরশাদ। করেছেন। আল্লাহ তায়ালার পক্ষ হতে আমাকে পাঁচটি বৈশিষ্ট্য দান করা হয়েছে। আমার। আগে কেউই তা লাভ করতে পারেনি। (১) সুদূর এক মাসের পর হতে শত্রু পক্ষকে ভীত-সন্ত্রস্ত করার শক্তিশালী >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২১২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২১২ - হযরত আয়েশা (রা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন ফাতিমা বিনতে আবু হােরায়রা (রা) নবী করীম -কে জিজ্ঞেস করলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমি কখনও পবিত্র হই না। এমতাবস্থায় আমি কি নামায ছেড়ে দেব? তখন তিনি বললেন, এ হলাে এক ধরনের বিশেষ রক্ত >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৫০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৫০ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহর বলেন, তােমাদের মধ্যে কেউ যখন অযু করবে, সে যেন তার নাকের ছিদ্রে পানি দিয়ে উহা ঝেড়ে পরিষ্কার করে নেয়। আর যে ঢিলা ব্যবহার করবে সে যেন বেজোড়ভাবে টিলা ব্যবহার করে। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৩০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৩০ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে যায়েদ (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার রাসূল আমাদের বাড়ি এলেন। আমরা তাঁকে পিতলের একটি পাত্রে পানি দিলাম। তিনি তা দিয়ে অযু করলেন। তার মুখমন্ডল তিনবার ও উভয় হাত দুবার করে ধৌত করলেন এবং তার হাত সামনে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১০০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১০০ - হযরত আয়েশা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন রাসূলুল্লাহ আমাকে বলেছেন, তােমাদের বংশধরেরা যদি সবেমাত্র নও মুসলিম না হতাে তবে আমি কাবা ঘরকে ভেঙ্গে নতুনভাবে তৈরি করতাম। কাবার যে অংশ পরিত্যক্ত রয়েছে তা নিয়ে নতুন করে তৈরি করতাম। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১০৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১০৫ - হযরত ইবনে আব্বাস (রা) ও লােকদের মধ্যে দোভাষীর কাজ করতাম। একদিন হযরত ইবনে আব্বাস (রা) বললেন, আবদুল কায়েস গােত্রের একটি প্রতিনিধিদল রাসূলুল্লাহ -এর নিকট এলে। তিনি বললেন, তােমরা কোন প্রতিনিধি দল? তারা বলল, রবীয়া গােত্রের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১০০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১০০ - হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) কর্তৃক বর্ণিত, তিনি বলেন।একবার আমরা রাসূল এর সাথে মসজিদে বসেছিলাম, এমন সময় এক ব্যক্তি সওয়ার অবস্থায় প্রবেশ করল। মসজিদ প্রাঙ্গণে সে উটটি বেঁধে সাহাবীদের উদ্দেশ্য করে বলল, তােমাদের মধ্যে মুহাম্মদক >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৯ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন। রাসূলুল্লাহ আমাকে বুকে জড়িয়ে ধরলেন এবং আমার জন্য দুআ করলেন। হে আল্লাহ! তাকে কিতাব তথা কুরআনের ইলম দান কর। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৮ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত তিনি বলেন, এক ব্যক্তি নবী করীম -এর কাছে জিজ্ঞেস করলেন, ইহরামকারী ব্যক্তি কি কাপড় পরিধান করবেন? উত্তরে রাসূল পাক বললেন, জামা, পায়জামা, পাগড়ী, সেলাইকৃত কাপড় এবং জাফরান দ্বারা রং করা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৭ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, এক ব্যক্তি। মসজিদে দাড়িয়ে জিজ্ঞেস করল, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমরা কোন স্থান থেকে ইহরাম বাধবা রাসূল পাক-বললেন, মদীনাবাসীরা যুল হােলাইফা হতে ইহরাম বাঁধৰে। নজরবাসীরা। করন হতে আর >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৬ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, হযরত উবাই ইবনে কাব (রা) নবী করীম হতে বর্ণনা করেছেন, একদিন )। বনী ইসরাঈলদের মধ্যে ওয়াজ-নসীহত করছিলেন। এমন সময় এক ব্যক্তি তাঁকে জিজ্ঞেস করলেন, আপনি অপেক্ষা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৫ - হযরত আলী ইবনে আবু তালেব (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমার শরীর হতে অত্যধিক পরিমাণ মযী বের হতাে। রাসূলুল্লাহই এর কাছে সে বিষয় মাসআলা জিজ্ঞেস করতে আমি লজ্জা বােধ করলাম। কেননা তিনি আমার শ্বশুর। আমি হযরত মেকদাদ (রা)-কে এ বিষয় >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৪ - হযরত উম্মে সালামা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার হযরত আনাস (রা) এর মাতা উম্মে সােলায়ম (রা) রাসূলেপাক এর খেদমতে হাযির হয়ে বললেন, ইয়া রাসূলুল্লাহ! মহান আল্লাহ হক কথা বলতে লজ্জাবােধ করেন না। তাই আমার প্রশ্ন হচ্ছে মহিলাদের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯৩ - হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন এক সময় নবী করীম উটের উপর সওয়ার ছিলেন। হযরত মায়ায ইবনে জাবাল (রা) তাঁর সাথে উটের হাওদার পিছনে বসা ছিলেন। রাসূলেপাক হযরত মায়ায (রা)-কে ডেকে বললেন, “হে মায়ায ইবনে জাবাল!মায়া >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯১ - হযরত আবু মূসা আশ আরী (রা) হতে বর্ণিত এক ব্যক্তি নবী করীম এর দরবারে উপস্থিত হয়ে জিজ্ঞেস করল, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আল্লাহর রাস্তায় জিহাদ কি প্রকারে হয়? আমাদের মধ্যে কেউ রাগের বশীভূত হয়ে যুদ্ধ করে, কেউ প্রতিশােধের | বশীভূত >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯০ - আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ শেষ জীবনে এক রাতে আমাদেরকে নিয়ে এশার নামায আদায় করলেন। সালাম ফিরাবার পর তিনি দাঁড়ায়ে বললেন, তােমরা এখন এ রাতকে দেখতে পারছ না? এ রাত হতে। একশত বছর পর বর্তমানে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৯ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসূলেপাক এর থেকে দু’ডােল এলেম মুখস্থ করেছি। এর মধ্য হতে এক ডােল এলেম আমি তােমাদের কাছে সাধারণভাবে বর্ণনা করে দিয়েছি। কিন্তু দ্বিতীয় ডােল এলেম যদি আমি তােমাদের কাছে বর্ণনা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৮ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) বর্ণনা করেন। আমি একবার আরজ করলাম। ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমি আপনার হাদীস শুনি কিন্তু মনে রাখতে পারি না। রাসূলুল্লাহ বললেন, তােমার চাদর বিছাও। আমি চাদরখানা বিছালাম। তিনি চাদরের উপর হাতের মুঠ ভরে কিছু দান কর >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৭ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, সকলেই বলে আবু হােরায়রা (রা) হাদীস অনেক বেশী বর্ণনা করেন। মােহাজের ও আনসার সাহাবীগণ মিলেও রাসূলুল্লাহ হতে ঐ পরিমাণ হাদীস বর্ণনা করেননি, যে পরিমাণ হাদীস আবু হােরায়রা (রা) বর্ণনা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৬ - হযরত উম্মে সালামা (রা) বর্ণনা করেন, নবী করীম একবার ঘুম থেকে হঠাৎ আঁতকে উঠলেন এবং বললেন, সুবহানাল্লাহ! এ রাত্রি কালে কত প্রকার বিপদাপদ দুনিয়ার বুকে নেমে এসেছে এবং কত প্রকার রহমতের ভান্ডারও খুলে দেয়া হয়েছে। ঘরে যারা শুয়ে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৫ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম -এর সাহাবাগণের মধ্যে কারাে কাছে আমার চেয়ে হাদীস বর্ণনা কারী নেই। তবে | আবদুল্লাহ ইবনে আমর (রা) থেকে আমার চেয়ে হাদীস বেশী বর্ণনা হতে পারে। কেননা তিনি রাসূলুল্লাহ-এর হা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮৩ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আবি মুলাইকা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা (রা)-এর অভ্যাস ছিল, তিনি কোন কিছু শুনলে তা বুঝে ন আসা পর্যন্ত পুনরায় জিজ্ঞেস করতেন, যাতে তার পরিষ্কার বুঝে আসে। একবার রাসূলুল বললেন, যা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮২ - হযরত সালামা ইবনে আকওয়া (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহকে বলতে শুনেছি, “যে ব্যক্তি আমার নামে এমন কথা বলবে যা আমি। বলি নাই তার ঠিকানা হবে জাহান্নাম। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮১ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) বর্ণনা করেন, এক ব্যক্তি তাকে প্রশ্ন করল, নবী করীম এর সাথে আপনি কোন ঈদের জামাআতে হাজির হয়েছেন কি? তিনি বললেন, হ্যা অবশ্য নবী করীম এর সাথে বিশেষ সম্পর্ক না থাকলে আমার ভাগ্যে তা নিশান উড়ান ছিল >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮০ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আমর ইবনে আস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন আমি শুনেছি রাসূলুল্লাহ বলেছেন, আল্লাহ তায়ালা এলেম তাঁর বান্দাদের মধ্য হতে উঠিয়ে নিবেন না কিন্তু আলেমদেরকে উঠিয়ে নিয়ে এলেম উঠিয়ে নিবেন। যখন দুনিয়ার বুকে আলেম >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৯ - হযরত যায়েদ ইবনে খালেদুল জুহানী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, এক ব্যক্তি রাসূলুল্লাহ কে হারানাে বস্তু সম্পর্কে প্রশ্ন করলেন, তা পাওয়ার পর কি করা হবে। উত্তরে রাসূলেপাক প্রকার বললেন, উক্ত বস্তুর মুখ বন্ধ অথবা লেবেল বা কভার ভাল >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৮ - আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) হতে বর্ণিত। হযরত ওমর ইবনে খাত্তাব (রা) বলেন, আমি এবং আমার প্রতিবেশী বনি উন্মিয়াহ যায়েদ গােত্রের আনসারী সাহাবী যিনি মদীনার নিকটবর্তী পূর্বদিকের এক গ্রামে বাস করতেন। আমরা উভয়ে এলেম শিক্ষার জন্য >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৭ - হযরত উবাহ ইবনে হারেস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি আবু ওহাব ইবনে আজিজ (রা)-এর মেয়ে হযরত গনিয়াহকে বিবাহ করার পর আমার কাছে এক মহিলা এসে বললেন, আমি (উকবাহ) তার বিবাহিত স্ত্রী গনিয়াহকে বুকের দুধ পান করায়েছি। যাতে তােমরা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৫ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একদিন রাসূলেপাক হকে প্রশ্ন করা হলাে কিয়ামতের দিন আপনার শাফায়াত দ্বারা কোন ব্যক্তি সর্বপ্রথম উপকৃত হবেন? উত্তরে রাসূল বললেন, হে আবু হােরায়রা! হাদীস শিক্ষার প্রতি তােমার যে আগ >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৪ - হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রা) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন একবার মহিলাগণ নবী করীম এর কাছে আপত্তি করল আমরা পুরুষদের জন্য আপনার দরবারে হাজির হতে পারি না। অতএব আপনি শুধু আমাদের জন্য একটি দিন নির্ধারিত করে দিন। অতপর রাসূলেপাক খাসভাবে তাদের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭৩ - হযরত আবু মূসা আশআরী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলন, রাসূলুল্লাহ বলেন, তিন প্রকার লােক দ্বিগুণ সওয়াবের অধিকারী হবে। যে ব্যক্তি ইয়াহুদী বা খ্রীষ্টান ছিল, সে ধর্ম পরিত্যাগ করে, মুহাম্মদ -এর উপর ঈমান এনেছে। দ্বিতীয় ; ঐ ক্রীতদাস >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭২ - হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম। যখন কোন কথা বলতেন, তখন তা বার বার বলতেন। আর কোন লােকের কাছে আসলে জায়গা বিশেষ তিনবার সালাম করতেন। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৭০ - হযরত আবু মাসউদুল আনসারী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একব্যক্তি রাসূলুল্লাহ এর দরবারে হাজির হয়ে আরজ করলেন। ইয়া রাসূলাল্লাহ অমুক ব্যক্তি যেভাবে নামায লম্বা করছেন তাতে নামাযে শরীক হওয়া আমার পক্ষে সম্ভব হচ্ছে । তা শুনে রাসূলে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৯ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আমর ইবনুল আস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, বিদায় হজ্জের সময় হযরত রাসূলে পাক “মিনা” নামক স্থানে নিজের উটের উপর দাঁড়ানাে ছিলেন। যাতে করে মানুষ দূর থেকে তাকে দেখতে পারেন এবং প্রশ্ন করতে পারেন। এমন সময় এক >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৮ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহকে বলতে শুনেছি একবার আমি নিদ্রাবস্থায় ছিলাম। আমি স্বপ্নে দেখতে পেলাম, আমার জন্য এক পেয়ালা দুধ নিয়ে আসা হয়েছে। আমি তা হতে দুধ পান করলাম, এমনভাবে দুধ পান >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৭ - হযরত আনাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন আমি এমন একটা হাদীস বর্ণনা করব যা আমার পরে অন্য কেউ তােমাদেরকে শুনাবেন না। আমি রাসূলুল্লাহ কে বলতে শুনেছি। তিনি বলেন কিয়ামতের কতিপয় আলামতের মধ্যে কিছু আলামত হলাে, এলেম দুর্বল হয়ে যাবে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৬ - হযরত আনাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন রাসূলুল্লাহ বলেন, কিয়ামতের আলামতের মধ্যে কিছু আলামত হলাে, এলেম উঠে যাবে, মূর্খতা বেড়ে যাবে, যেনা-ব্যভিচার বৃদ্ধি পাবে, মদ বেশী করে পান করা হবে, এমন কি তা আর গােপনে পান করবে না। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৪ - হযরত মাহমুদ বিন রবী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলেপাক এর মুখ মােবারকের সেই কুলিটি আমার স্মরণ আছে। যা তিনি পাত্র হতে পানি মুখে নিয়ে আমার মুখে ঢেলে দিয়েছিলেন। সে সময় আমার বয়স মাত্র পাঁচ বছর ছিল। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬৩ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি বিদায় হজ্জের সময় একটি গাধীর উপর আরােহণ করে এসেছিলাম। সে সময় আমি বালেগ হওয়ার নিকটবর্তী হয়েছিলাম। সে সময় রাসূলেপাক ও মিনাতে নামায পড়ছিলেন। সামনে কোন সাহাবারা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬২ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা) হতে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ বলেন, হিংসা জায়েয নেই। কিন্তু দু’কারণে হিংসা করা বৈধ বা জায়েয। একব্যক্তি হচ্ছে, যাকে আল্লাহ পাক অধিক ধন-সম্পদ দান করেছেন। আর সে তা আল্লাহর রাস্তায় খরচ করার জন্য >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬১ - হযরত হুমাইদ ইবনে আবদুর রহমান (র) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি হযরত মুয়াবিয়া (রা)-কে একবার খুতবার মধ্যে বলতে শুনেছি, তিনি (মুয়াবিয়াকে)। বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ কে বলতে শুনেছি। তিনি বলেন, আল্লাহ তায়ালা যার মঙ্গল। কামনা করেন >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৬০ - হযরত আবি ওয়ায়েল (র) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা) মানুষদেরকে প্রতি বৃহস্পতিবার ওয়াজ ও নসীহত শুনাতেন। অতঃপর এক ব্যক্তি তাঁকে বললেন, হে আবু আবদুর রহমান! অর্থাৎ আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা) আমরা চাই >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৮ - হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম বলেন, তােমরা যেকোন কাজে সহজ সরল পন্থা অবলম্বন করাে, জটিলতা সৃষ্টি করাে। অর্থাৎ কঠিন পন্থা অবলম্বন করাে না। মানুষদেরকে শুভ সংবাদ প্রদান করাে, ভীতি প্রদর্শন করে অশুভ >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৭ - হযরত আবু বকর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি রাসূলুল্লাহ -এর বিদায় হজ্জের ঘটনা সম্পর্কে আলােচনা করতে গিয়ে বলেন। বিদায় হজ্জের দিন হুযুর উটের উপর বসা ছিলেন। এক ব্যক্তি উটের লাগাম ধরে দাড়িয়ে ছিলেন। রাসূলেপাক সাহাবাদেরকে লক্ষ্য করে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৬ - হযরত আবু ওয়াবেদ লাইসী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার রাসূলুল্লাহর মসজিদে বসা ছিলেন। সাহাবায়ে কেরামগণও তার সাথে বসা ছিলেন। হঠাৎ করে তিন ব্যক্তি আগমন করলেন। তার মধ্যে দুব্যক্তি রাসূলেপাক এর কাছে আসলেন এবং অপর একব্যক্তি চল >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৫ - হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন আমরা একবার মসজিদে নববীতে রাসূলেপাক এর দরবারে উপস্থিত ছিলাম। হঠাৎ এক ব্যক্তি উটের পিঠে আরােহণ করে সেখানে আসলেন। সে উটটিকে র পাশে বসালেন, তারপর তার দুপা বেধে দিলেন। অতঃপর >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৪ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ এ এক ব্যক্তিকে একখানা চিঠি দিয়ে পাঠিয়ে দিলেন এবং তাকে বলে দিলেন, এ চিঠিখানা বাহরাইনের গর্ভনরের কাছে নিয়ে যাবে। বাহারাইনের গর্ভনর ঐ চিঠিখানা পারস্যের বাদশা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫৩ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম বলেন, একপ্রকার গাছ আছে যার পাতা ঝরে না। ঐ গাছটি মুসলমানের ন্যায় অর্থাৎ মুসলমানের সাথে গাছটির তুলনা হতে পারে। তােমরা আমাকে বলতাে দেখি ঐ গাছটি কোন গাছ? রাবী বলেন >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫২ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, কোন এক সফরে রাসূলেপাক আমাদের থেকে পিছনে রয়ে গেলেন। অতঃপর তিনি সামনে এগিয়ে আমাদেরকে পেলেন। ঐ সময় নামাযের ওয়াক্ত নিকটে হওয়ার কারণে আমরা। তাড়াতাড়ি অযু করছিলাম, আমরা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫০ -) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন। রাসূলুল্লাহ ও সাহাবাদেরকে এমন আমল করার হুকুম করতেন, যা সর্বদা সহজে করা যায়। এমন আমল শিক্ষা দিতেন। সাহাবারা বললেন, ইয়া রাসূলাল্লাহই আমরা আপনার মত নই। নিশ্চয়ই আল্লাহ তায়ালা আপনার সকল >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৯-হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ একান্ত বলেন, তিনটি জিনিস যে ব্যক্তির মধ্যে আছে সেই ঈমানের স্বাদ পেয়েছে। (১) যে ব্যক্তির নিকট আল্লাহ ও তার রাসূল সবচেয়ে প্রিয় (২) যে মানুষকে ভালবাসে একমাত্র আল্লাহ >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৮ - হযরত জারীর ইবনে আবদুল্লাহ আল বাজালী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি একবার রাসূলুল্লাহ - এর হাতে বাইয়াত গ্রহণ করলাম। নামায প্রতিষ্ঠা করার জন্য, যাকাত প্রদান করার জন্য এবং সকল মুসলমানের কল্যাণ সাধনের উদ্দেশ্যে। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৭ - হযরত সাদ ইবনে আবী ওয়াক্কাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলাল্লাহ বলেন,-তুমি যা কিছু একমাত্র আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে খরচ করবে, তার জন্য অবশ্যই তােমাকে প্রতিদান দেয়া হবে, এমন কি তুমি নিজের স্ত্রীর মুখে যে খাদ্য >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৬ - হযরত আবু মাসউদ আনসারী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম এলাকায় বলেন, যদি কোন ব্যক্তি নিজের সন্তান-সন্ততির জন্য কোন কিছু খরচ করে তখন ঐ খরচ তার সদকা হিসেবে গণ্য হয়। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৫ - হযরত ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন নবী করীম বলেন, মানুষের কর্মের ফলাফল নিয়ত অনুসারে হয়ে থাকে। প্রত্যেক ব্যক্তি তার প্রাপ্য পাবে যা সে নিয়ত করে। সুতরাং যার হিজরত আল্লাহ ও তার রাসূলের সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য হয়ে থাকে, তার >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৪ - হযরত নােমান ইবনে বশীর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ ও কে বলতে শুনেছি যে, হালাল ও হারাম উভয়ই প্রকাশ্য। তবে এ দুয়ের মধ্যে রয়েছে সন্দেহ জনক কিছু বস্তু যা অনেক লােকেই জানে না। সুতরাং যে ব্যক্তি এসব সন্দেহ যুক্ত >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪৩ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার নবী করীম সাহাবীদের উদ্দেশ্যে মসজিদে নববীতে হাজির হলেন। এমন সময় তার কাছে এক জন অপরিচিত লােক হাজির হয়ে প্রশ্ন করলেন, ঈমান কি? উত্তরে রাসূলেপাক বললেন, ঈমান হলাে আল্লাহ >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪২ - হযরত উবাইদা ইবনে সামেত (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ শবে কদরের খবর দেয়ার জন্য বের হলেন। অতঃপর তিনি দেখতে পেলেন পরস্পর দুজন মুসলমান ঝগড়ায় লিপ্ত রয়েছেন। তাদের এ অবস্থা দেখে রাসূলেপাক এবার বললেন, আমি তােমাদেরকে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৪০ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ বলেন, যে ব্যক্তি ঈমানের সাথে সাওয়াবের আশায় কোন মুসলমানের জানাযার পিছনে পিছনে চলে। তারপর জানাযার নামায আদায় ও দাফন করা পর্যন্ত তার সাথে থাকে তা হলে সে ব্যক্তি >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৮ - হযরত ওমর বিন খাত্তাব (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার এক হহুদী বললেন হে আমিরুল মুমিনিন! আপনাদের কুরআনে এমন একটি আয়াত রয়েছে। যা আপনারা সর্বদা তেলাওয়াত করেন। যদি আমাদের ইয়াহুদীদেরকে নিয়ে এমন কোন আয়াত নাযিল হত, তাহলে আমর >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৬ - হযরত আয়েশা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীমঙ্গল একবার আমার ঘরে আসলেন, ঐ সময় এক মহিলা আমার কাছে বসা ছিল। নবী করীম জিজ্ঞেস করলেন, এ মহিলাটি কে? আমি বললাম, ইনি অমুক মহিলা যার নাম খােলা। আমি মহিলাটির তাহাজ্জুদ নামাযের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৫ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন নবী করীম বলেন, তােমাদের মধ্য হতে কোন ব্যক্তি যদি তার ইসলামকে সুন্দর ও শ্রেষ্ঠ বানিয়ে নেয় অর্থাৎ মুনাফেকী ও রিয়া অন্তর থেকে দূর করে দেয়, তখন সে যেসব নেক কাজ করে তার সওয়াব ১০ >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩৩ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন রাসূলুল্লাহ বলেন, যে ব্যক্তি ঈমানের সাথে আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে রমজানের রােজা রাখে। তার পূর্ববতী সমস্ত গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩২ - হযরত আবু হােরায়রাহ (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ বলেছেন, মাহে রমজানের রাতে যে ব্যক্তি ধর্মীয় চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে আল্লাহর রেজামন্দির। উদ্দেশ্যে নামায ও অন্যান্য নফল ইবাদত করে। তার অতীতের সকল ছগীরা গুনাহ মাফ করে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩১ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন আল্লাহ তায়ালা যখন- অর্থৎ যারা ঈমান গ্রহণ করে এবং ঈমানের সাথে জুলুমকে না মিলায়” এ আয়াতখানা নাযিল করলেন তখন সাহাবীগণ রাসূলুল্লাহকে বললেন! আমাদের মধ্যে এমন কে আছে যে কমবেশ >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৩০ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীমগাহার বলেন, যে ব্যক্তি আল্লাহর রাস্তায় জেহাদের উদ্দেশ্যে বের হয়, আল্লাহ্ তায়ালা তার জিম্মাদার হয়ে গেছেন। মহান আল্লাহ তায়ালা বলেন, “তার যুদ্ধে বের হওয়া একমাত্র আমার >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৯ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) বলেন, যে ব্যক্তি ঈমানের সাথে ও উদ্দেশ্যে শবে কদরে কিয়াম করবে। অর্থাৎ নামায পড়বে, তার পূর্ববর্তী যাবতীয় গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে । >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৮ - হযরত আহনাফ ইবনে কায়েস (রা) হতে বর্ণিত তিনি বলেন, একসময় আমি হযরত আলী (রা)-এর সাহায্যের জন্য রওয়ানা হলাম। পথের মধ্যে হযরত আয় বকর (রা)-এর সাথে আমার সাক্ষাৎ হলাে, তিনি আমাকে জিজ্ঞেস করলেন, তুমি কোথায় যাচ্ছ? উত্তরে আমি বললা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৭ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম (সা) বলেন, যার মধ্যে চারটি স্বভাব থাকবে সে পাক্কা মুনাফিক এবং যার মধ্যে তার | একটি স্বভাব থাকবে, তার মধ্যে মুনাফিকের চিহ্ন বিদ্যমান থাকবে, যে পর্যন্ত না সে তা >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৬ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম বলেন, মােনাফিকের আলামত তিনটি ১। যখন সে কথা বলে তখন মিথ্যা বলে। ২। যখন কারাে সাথে কোন অঙ্গিকার বা ওয়াদা করে, তখন তা ভঙ্গ করে। ৩। যখন তার কাছে কোন কিছু আমানত রাখা হয় >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৫ - হযরত ইবনে আব্বাস (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন নবী করীমপ্রদায় বলেন, “আমাকে জাহান্নাম দেখানাে হয়েছে। তখন আমি দেখতে পেলাম দোযখের অধিকাংশই মহিলা। কারণ তারা কুফরী (অকৃতজ্ঞতা) বেশী করে থাকে। হুযুর হারকে জিজ্ঞেস করা হলাে তারা কি আল >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৪ - হযরত সাদ ইবনে মাআয (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, একবার রাসূলুল্লাহ কতিপয় লােকদেরকে কিছু দান করলেন । সাদ ইবনে মাআযও ঐ স্থানে বসা ছিলেন, হযরত সাদ বলেন, রাসূলুল্লাহ তাদের মধ্য হতে এমন এক ব্যক্তিকে কিছু দিলেন না যে ব্যক্তি তাদের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২৩ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা) কে। জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, কোন কাজটি সবচেয়ে ভাল? তিনি উত্তর দিলেন, আল্লাহ ও তার রাসূলের উপর ঈমান আনা। পুনরায় প্রশ্ন করা হয়েছিল। তারপর কোন কাজটি উত্তম? তিনি >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২২ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ বলেন, আমি মানুষের সাথে জেহাদ করার জন্য আদিষ্ট হয়েছি, যতক্ষণ না সে “আল্লাহ ছাড়া অন্য কোন মাবুদ নেই এবং হযরত মুহাম্মদ আল্লাহর রাসূল” এ কথার সাক্ষ্য দিবে, নামায কায়েম করব >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২১ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) বলেন, রাসূলুল্লাহ একবার এক আনসারী সাহাবীর পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন, যখন তিনি তার ভাইকে লজ্জার ব্যাপারে, নসিহত করছিলেন। অতঃপর রাসূলুল্লাহ আনসারী ব্যক্তিকে বললেন, “তাকে ছেড়ে দাও লজ্জা ঈমানের অংশ। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২০

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ২০ - হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন রাসূলুল্লাহ বলেন, আমি একদিন ঘুমে ছিলাম, স্বপ্নে দেখি লােকদেরকে আমার সামনে উপস্থিত হচ্ছে এ অবস্থায় যে, তারা সকলেই জামা পরিহিত, তাদের মধ্যে কারাে জামা বুক পর্বত কারাে জামা বুকের >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৯ - হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলে পাক বলেন, জান্নাতবাসীগণ এবং জাহান্নামবাসীরা জাহান্নামে প্রবেশ করার পর ফেরেশতাদেরকে বলবেন, জাহান্নাম হতে বের করে আন তাদেরকে যাদের অন্তরের মধ্যে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৮ - হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ বলেন, ঐ সময় অতি নিকটবর্তী যে সময় মুসলমানগণ ফিতনা ফ্যাসাদ থেকে বাঁচার জন্য নিজের উত্তম সম্পদ ও বকরীগুলাে নিয়ে পাহাড়ের চূড়া অথবা আরাে ঊর্ধ্বে গিয়ে আত্মগােপন করব >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৭

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৭ - হযরত উবাদাহ বিন সামেত (রা) বলেন- একবার একদল সাহাবী রাসূলেপাককারকে ঘিরে বসা ছিলেন, এমন সময় তিনি তাদেরকে বললেন, তােমরা আমার এ কথার উপর অঙ্গীকার বা বায়আত গ্রহণ কর যে, তােমরা আল্লাহর সাথে কোন কিছুকে শরীক করবে না। চুরি করবে না >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৬

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৬ - হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম বলেন, মদীনা শরীফের আনসার সাহাবীদের ভালবাসা ঈমানের চিহ্ন এবং তাদের সাথে শত্রুতা পােষণ করা মােনাফেকীর চিহ্ন। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৫

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৫ - হযরত আনাস ইবনে মালেক (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী করীম বলেন, ঐ ব্যক্তি ঈমানের স্বাদ উপভােগ করতে সক্ষম হয়েছে, যার মধ্যে তিনটি গুণ বিদ্যমান (১) যার কাছে পৃথিবীর সমুদয় বস্তু হতে আল্লাহ ও তাঁর রাসূল বেশী প্রিয়। (২) যে >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৪

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৪ - হযরত আবু হুরায়রাহ (রা) হতে বর্ণিত। রাসূল পাক এই বলেন, এ আল্লাহ পাকের শপথ। যার হাতে আমার জীবন। তােমাদের মধ্যে কেউ ততক্ষণ পর্যন্ত পূর্ণ মুমিন হবে না যতক্ষণ পর্যন্ত আমি তার নিকট তার পিতা-মাতা ও সন্তান সন্ততি হতে অধিক প্রিয় না >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৩

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১৩ - হযরত আনাস বিন মালেক (রা) হতে বর্ণিত। নবী করীমশাইর বলেন, তােমাদের মধ্যে কেউ পুরােপুরি মুমিন হতে পারবে না, যে পর্যন্ত সে তার মুসলমান ভাইয়ের জন্য ঐ সকল বস্তু পছন্দ না করবে, যা নিজের জন্য পছন্দ করে। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১২

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১২ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন এক ব্যক্তি রাসূলুল্লাহকে জিজ্ঞেস করল, ইসলামের কোন দিকটা উত্তম? রাসূলুল্লাহ দিলেন, পরিচিত ও অপরিচিত সকলকে সালাম দেয়া এবং ক্ষুধার্তকে খানা খাওয়ানাে। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১১

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ১১ - হযরত আবু মূসা আশআরী (রা) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন সাহাবাগণ রাসূলুল্লাহ আমাকে জিজ্ঞেস করলেন ইয়া রাসূলাল্লাহ! ইসলামের কোন দিকটা উত্তম। রাসূলুল্লাহ উত্তর দিলেন, যার জবান ও হাত হতে মুসলমানগণ নিরাপদ রয়েছে। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৯ - হযরত আবু হােরায়রা (রা) থেকে বর্ণিত, নবী করীম বলেন, ঈমানের ৬০ (ষাট) টির অধিক শাখা-প্রশাখা রয়েছে। লজ্জা ঈমানের একটি শাখা। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ৮ - হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ ইসলাম পাঁচটি স্তম্ভের উপর প্রতিষ্ঠিত। ১) কালেমা। ২) নামায প্রতিষ্ঠা করা। ৩) যাকাত দেয়া। ৪) হজ্জ করা। ৫) রমজানের রােজা রাখা। >> Read More

সহীহ বুখারী শরীফ

সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস নং ০১

সহীহ বুখারী হাদীস নং ০১ - হযরত আলকামা ইবনে ওয়াক্কাস লাইসী (রাঃ) বলেন, আমি শুনেছি উমার ইবনে খাত্তাব মসজিদের মিম্বারের ওপরে আরােহণ করে বলছিলেন, আমি আল্লাহর রাসূল। একাই কে বলতে শুনেছি, সকল কাজই নিয়াত অনুসারে হয়। আর সকল ব্যক্তি যা নিয়াত করে তাই লাভ করে। >> Read More

News all time